বন্ধুর থেকে পাওনা টাকা কীভাবে চাইবেন?

কালচক্র ডেস্কঃ

কথায় বলে বিপদেই বন্ধুর পরিচয়। ভালো বন্ধু হতে গিয়ে তাঁর বিপদে টাকা ধার দিয়ে বসলেন। ব্যস, তারপর শুরু ঝামেলা। সময় মতো টাকাও দিচ্ছে না, আর লজ্জার খাতিরে আপনি চাইতেও পারছেন না। কী করবেন? টাকার আশা ছেড়ে দিবেন? কোন প্রয়োজন নেই, খুব সহজে ফেরত পেতে পারেন আপনার টাকা। আর বন্ধুত্বও থাকবে অটুট।

আর্থিক সমস্যায় আছে সেটি বোঝান
বন্ধুর কাছ থেকে ধার টাকা চাওয়ার আগে, মনের মধ্যে আসে নানা প্রশ্ন। প্রথমেই চিন্তা হয়, সে কী মনে করবে! টাকা ফেরত চেয়ে বন্ধুকে বিব্রত অবস্থায় ফেলতে চান না। তবে একটু ভাবুন, আপনার টাকা প্রয়োজন হলে এতো জড়তার কী দরকার। আপনি যেমন বন্ধুর সমস্যা বুঝেছেন, তেমনি তাঁরও উচিত আপনার বিষয়টি বোঝা। দুজনের মধ্যে যদি এইটুকু বোঝা-পোড়া যদি না থাকে, তবে কিসের বন্ধু! তাঁকে ভালোভাবে বুঝিয়ে বলুন যে টাকাটা আপনার দরকার। প্রকৃত বন্ধু নিশ্চয় বিষয়টি বুঝবে। আর আর্থিক সমস্যা না থাকলে অবশ্যই আপাকে দিয়ে দিবে।

বন্ধুর আর্থিক অবস্থা ঠিক না থাকলে
এমনটা হতেই পারে যে তার আর্থিক অবস্থার উন্নতি হয়নি। তাহলে অন্য উপায় খুঁজতে হবে। ধরুন বন্ধুর কাপড়ের দোকান রয়েছে সেখান থেকে সেই পরিমাণ টাকার কেনাকাটা করে নিন। বা যদি মুদি দোকান থাকে তবে মাসের বাজার সেরে নিতে পারেন। এতে সে খুব একটা অসন্তুষ্ট হবে না।

মনে করিয়ে দিতে হবে
অনেকেই আছেন টাকা নেওয়ার পর ফেরত দেওয়ার কথা ভুলে যান। এমন ভুল অনিচ্ছাকৃতও হতে পারে! এমনটা যদি হয় তবে দেখবেন তখনই ফেরত দিয়ে দিয়েছে। আর যদি আপনি বুঝতে পারেন ইচ্ছাকৃত ভাবেই ভুলে গিয়েছে, তবে মাঝে মাঝেই মনে করিয়ে দিবেন। আর পরের বার ধার দেওয়ার আগে চিন্তা করবেন।

দারুণ কার্যকরী টিপস
নিশ্চয় বন্ধুরা মাঝে মধ্যে আউটিং বা ডিনারের প্ল্যান করেই থাকে। এই সময় যদি সেই বন্ধু থাকে তবে আপনি নিজেকে বিরত রাখুন। কারণ জানতে চাইলে বলুন খরচ করার মতো টাকা এখন কাছে নেই। বন্ধু হলে নিশ্চয় সমাধান করে দেবে। তাহলে আলাদা করে আর পাওনা টাকা চাইতে হবে না।

কিস্তির সুবিধা দিতে পারেন
অনেক সময় হতে পারে বন্ধু টাকা ফেরত দিতে চাই, কিন্তু একবারে পুরোটা দিতে পারছে না। আপনি তাঁর সামনে ভাগে ভাগে দেওয়ার সুবিধা রাখতে পারেন। তাহলে হয়তো টাকা শোধ করা সহজ হবে। বন্ধুকে বিষয়টি বুঝিয়ে বলুন দেখবেন ঠিক কাজ হয়েছে। অল্প অল্প করে আপনার পাওনা টাকা মিটিয়ে দিতে পারেন। আর আপনাদের বন্ধুত্বও অটুট থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *