মণিরামপুরে বিএনপি এখন ভাড়াখাটা দলে পরিণত হয়েছে ! সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রভাষক ফারুক হোসেন

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি :
কতিপয় বিএনপি নেতার নেতৃত্বে যশোরের মণিরামপুর উপজেলা বিএনপি ভাড়াখাটা দলে পরিনত হয়েছে। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচনের পর থেকে বিএনপির এই গোষ্ঠী সুযোগ বুঝে টাকার বিনিময়ে ভাড়া খেটে চলেছে। সর্বশেষ সদ্য অনুষ্ঠিত উপজেলা নির্বাচনেও বিএনপির এই গোষ্ঠী একজন প্রার্থীর পক্ষে ভাড়া খেটেছে। যা এখন নিজ দলের মধ্যেও সমালোচনার ঝড় বইয়ে চলেছে। প্রধান বক্তার বক্তব্যে কথাগুলো বলেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক মোঃ ফারুক হোসেন।

শনিবার বিকেলে যশোর-৫ (মণিরামপুর) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ইয়াকুব আলীকে কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মনোনীত করায় উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। এছাড়াও অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সন্দীপ ঘোষ।

গত ৮মে সদ্য সমাপ্ত উপজেলা নির্বাচনে উপজেলা বিএনপির একজন শীর্ষ নেতার অনুগামী বিভিন্ন ইউনিয়ন বিএনপি নেতা আনিছুর রহমান, ইলিয়াস হোসেন, আলতাফ হোসেন, টগর, বাবলুর রহমান, খলিলুর রহমান, শফিকুল বারিসহ একাধিক নেতারা একজন প্রার্থীর পক্ষে প্রকাশ্যে পোস্টার টানানো, নির্বাচনী প্রচারনা চালানোসহ ওই প্রার্থীর মিছিলে দেখা মিলেছে। এদের অধিকাংশই ইউনিয়ন বিএনপির আহবায়ক, যুগ্ম আহবায়কসহ গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন।

এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একাধিক স্থির চিত্র ও ভিডিও ফুটেজ ভাইরাল হয়েছে। দলীয় নির্দেশনার প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামীলীগ পন্থী একজন প্রার্থীর পক্ষে অবস্থান নেয়ায় গত ১৩মে উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ডাঃ আলতাফ হোসেন সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য বিএনপির হাইকমান্ড বরাবর লিখিতভাবে আবেদন করেছেন। এ নিয়ে বিএনপির তৃণমূল নেতা-কর্মীদের মধ্যে সমালোচনার ঝড় বইয়ে চলেছে।

আরও পুড়ুনঃকেশবপুরে চারুপীঠ একাডেমির চিত্রাংকন উৎসব ও পুরষ্কার বিতরণী

পরিস্থিতি সামাল দিতে উপজেলা বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট শহীদ ইকবাল হোসেন নিজের অবস্থান তুলে ধরে গত ১৪মে পার্টি অফিসে সংবাদ সম্মেল করেন। সংবাদ সম্মেলনে তার বিরুদ্ধে নেতা-কর্মীদের তোলা সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আত্বীয়তার সূত্রে কতিপয় বিএনপি নেতা-কর্মী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে উভয় প্রার্থীর পক্ষে ভোট করেছেন। যে দায় দায়িত্ব আমার উপর চাপানো হচ্ছে। এ দায়িত্ব সংগঠনের উপর পড়বে কেনো ?

উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন আলহাজ্ব ইয়াকুব আলী এমপি। প্রধান বক্তা ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক প্রভাষক ফারুক হোসেন। সংবর্ধিত বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সন্দীপ ঘোষ। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন দলের বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধিসহ নেতৃবৃন্দ।

সার্বিক আলোচনা অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মনিরুজ্জামান মিল্টন ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কাজী টিটো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *